সব ধরনের মাদ্রাসায় ডাটাবেজ তৈরি হচ্ছে

ডেস্ক রিপোর্ট: সব ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের তথ্য নিয়ে একটি ডাটাবেজ তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। কওমি, নুরানী, দীনিয়া, ফোরকানিয়া, ইবতোদায়িসহ দেশের সব মাদরাসার ডাটাবেজ তৈরি করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে বলেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বিষয়টি আমলে নিয়ে বাংলাদেশ শিক্ষাতথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোকে (ব্যানবেইস) ডাটাবেজ তৈরি করতে বলেছে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ। বিভাগ থেকে বিষয়টি জানিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, কওমি, নুরানী, দীনিয়া, হাফেজিয়া ফোরকানিয়া ইবতেদায়িসহ সব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের ডাটাবেজ প্রস্তুত করার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগকে বলেছে স্বারষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ। বিষয়টি জানিয়ে গত ২৩ মে বিভাগকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি আমলে নিয়ে সব ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের একটি ডাটাবেজ প্রস্তুত করতে ব্যানবেইসকে বলেছে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ। আদেশে বিভাগ বলছে, শিক্ষা সেক্টরের জাতীয় ডাটাওয়্যার হাউসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের প্রোফাইল তৈরি ও হালনাগাদের কাজ করে ব্যানবেইস। তাই ব্যানবেইসের মধ্যেমে ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ডাটাবেজ করা দায়িত্ব ব্যানবেইসকে দেয়া হচ্ছে। তাই, কওমি, নুরানী, দীনিয়া, ফোরকানিয়া, ইবতোদায়িসহ দেশের সব ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের একটি ডাটাবেজ প্রস্তুত করার জন্য ব্যানবেইসকে বলেছে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ। ব্যানবেইসের মহাপরিচালককে এ নির্দেশনা দিয়ে জারি করা আদেশটি পাঠিয়েছে কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ।

এদিকে দেশের কওমি মাদরাসাসহ ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য যুগোপযোগী শিক্ষাব্যবস্থা কার্যকর করার উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। একই সাথে মাদরাসাগুলোকে সরকারি নিবন্ধনের আওতায় আনতে একটি নীতিমালা প্রণয়ন করা হচ্ছে। একইসাথে কওমি মাদরাসা সংক্রান্ত আলাদা আলাদা পরিচালিত ছয়টি শিক্ষা বোর্ডকে সমন্বয় করে একটি কওমি শিক্ষা বোর্ড গঠনের পরিকল্পনা করা হয়েছে। কওমি মাদরাসায় নিবন্ধনের নীতিমালা প্রণয়ন ও কওমি শিক্ষা বোর্ড গঠনের প্রস্তাব তৈরিতে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.