কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত সিসি ক্যামেরায় নজরদারি শুরু

  বিশেষ প্রতিনিধি    13-09-2023    129
কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত সিসি ক্যামেরায় নজরদারি শুরু

ইতিমধ্যে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকায় সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়ে সার্বক্ষণিক নজরধারী শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ট্যুরিস্ট পুলিশের হেডকোয়ার্টারের ডিআইজি মো. আবু কালাম সিদ্দিক।

মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ট্যুরিস্ট পুলিশের কক্সবাজার জোনের সম্মেলন কক্ষে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

ডিআইজি মো. আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার হবে দেশী-বিদেশী পর্যটকের জন্য শতভাগ নিরাপদ একটি অঞ্চল। এ পর্যটন জেলার সম্ভাবনাময় সকল পর্যটন স্পটে ট্যুরিস্ট পুলিশের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে নানাভাবে কাজ চলছে। ইতিমধ্যে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকায় সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়ে সার্বক্ষণিক নজরধারী শুরু করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সকল স্পট ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানেও বসানো হবে এই ক্যামেরা।

‘পর্যটন জাতীয় অর্থনীতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এখানে দেশীয় পর্যটকের সাথে বিদেশী পর্যটকের আগমন বাড়ানো গেলে জাতীয় অর্থনীতিতে রাজস্ব বাড়বে। এর জন্য একটি নিরাপদ পর্যটন জোন করতে যা যা করা প্রয়োজন তাই করবে ট্যুরিস্ট পুলিশ।’

পর্যটকের নিরাপত্তায় সকল ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চেয়ে তিনি বলেন, ব্যবসায়ীরা আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করলে নিরাপদ পর্যটন অঞ্চল তৈরি সম্ভব। এর জন্য সরকারের আইন মেনে পর্যটকদের কক্ষ ভাড়া প্রদান, খাবার বিক্রি, সুন্দর ব্যবহার জরুরী। কেউ আইন অমান্য করতে তা মেনে নেয়া হবে না।

সভায় পর্যটন খাতে নানা জটিলতা, সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন উপস্থিত ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। যা আলোচনা করে সমাধানের প্রতিশ্রুতিও দেন ট্যুরিস্ট পুলিশের ডিআইজি।

মতবিনিময় শেষে সমুদ্র সৈকতে বসানো সিসিটিভি ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণ কক্ষ পরিদর্শনের যান ট্যুরিস্ট পুলিশের হেডকোয়ার্টারের ডিআইজি মো. আবু কালাম সিদ্দিক।

পর্যটন-এর আরও খবর