স্থল অভিযানে এসে গাজা থেকে পালাতে হলো ইসরাইলি বাহিনীকে

  বিশেষ প্রতিনিধি    23-10-2023    156
স্থল অভিযানে এসে গাজা থেকে পালাতে হলো ইসরাইলি বাহিনীকে

ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস শাসিত গাজায় নির্বিচারে বোমা হামলার মধ্যেই সীমিত পরিসরে স্থল অভিযানে চালিয়েছে ইসরাইলের সামরিক বাহিনী। কিন্তু হামাসের সাথে টিকতে না পেরে অবশেষে সমর থেকে পালাতে বাধ্য হয়েছে তারা। সোমবার (২৩ অক্টোবর) হামাসের সশস্ত্র শাখা আল-কাসাম ব্রিগেডস বলেছে, সোমবার রাতে ইসরাইলি বাহিনী দক্ষিণ গাজার খান ইউনিসে অনুপ্রবেশ করে। তখন তাদের কঠোরভাবে প্রতিরোধ করে হামাস। এ সময় তারা ইসরাইলের দু’টি বুলডোজার ও একটি ট্যাঙ্ক ধ্বংস করে। এতে আক্রমণকারীরা অভিযান প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয়। ব্রিটেনভিত্তিক গণমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সীমিত পরিসরের এই স্থল অভিযানে ইসরাইলি প্রতিরক্ষা বাহিনীর (আইডিএফ) এক সদস্য নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। ইসরাইলের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ড্যানিয়েল হ্যাগারি বলেছেন, তাদের বাহিনী দক্ষিণ গাজার খান ইউনিসে সীমিত পরিসরে স্থল অভিযান চালিয়েছে। এ সময় সেখানে কিছু হামাস যোদ্ধা অবস্থান করছিল। তারা বড় পরিসরে ইসরাইলে হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাই তাদেরকে লক্ষ্য করে এই অভিযান চালানো হয়। এ সময় হামাসের হাতে বন্দী থাকা ২২২ ইসরাইলির তথ্য সংগ্রহেরও চেষ্টা করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। হামাস শাসিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ইসরাইলের বিমান হামলায় ৪৩৬ জন নিহত হয়েছে। একই দিন রাতে দক্ষিণ লেবাননেও হামলা চালায় তারা। একইসাথে অধিকৃত পশ্চিমতীরে গ্রেফতার অভিযানও পরিচালনা করা হয়। গাজার হামাস-চালিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মিশরের সাথে গাজার দক্ষিণ সীমান্তে রাফাহ-এর আল-সৌদি ও জানীনা এলাকায় ইসরাইলি বিমান হামলায় কমপক্ষে ১৮ ফিলিস্তিনি নিহত এবং কয়েক ডজন আহত হয়েছে। আল-কাসাম ব্রিগেড বলেছে, তারা দক্ষিণ ইসরাইলি শহর আশকেলন ও মাভকিইমে হামলা চালিয়েছে। এ সময় ইসরাইলে সতর্ক সাইরেন বেজে উঠেছিল। ইসরাইলি সৈন্য ও ট্যাঙ্ক এখন ইসরাইল-গাজা সীমান্তে অবস্থান করছে। কিন্তু তারা কবে হামাসকে নির্মূল করার লক্ষ্যে পূর্ণরূপে স্থল আক্রমণ শুরু করতে পারে, তা এখনো পরিষ্কার নয়। সূত্র : বিবিসি ও রয়টার্স

আন্তর্জাতিক-এর আরও খবর