সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন গড়ে তুলতে পারলেই স্মার্ট নাগরিক হওয়া সম্ভব -পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী

  প্রকাশক ও সম্পাদক     28-04-2024    130
সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন গড়ে তুলতে পারলেই স্মার্ট নাগরিক হওয়া সম্ভব -পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী

রেজুয়ান খান: পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেছেন, বহুভাষাভাষি, বহু সংস্কৃতির মানুষ পার্বত্য অঞ্চলে বসবাস করছে। আমরা চাই মানুষের কল্যাণ। মানুষের কল্যাণে সকল সংস্কৃতির মানুষের সাথে সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন গড়ে তুলতে পারলেই স্মার্ট নাগরিক হওয়া সম্ভব।

আজ খাগড়াছড়ি অফিসার্স ক্লাব অডিটোরিয়ামে জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থা, খাগড়াছড়ি জেলা কমিটি আয়োজিত ‘জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস-২০২৪’ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি এ কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি আরও বলেন, দুঃখী, অসহায় ও সামর্থহীন মানুষকে বিনামূল্যে আইনী সহায়তা প্রদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার আইনি সহায়তা কেন্দ্র তৈরি করেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সারাজীবন মানুষের কল্যাণে নিবেদিত ছিলেন। দুঃখী মানুষের অধিকার আদায় ও সুবিচার নিশ্চিতের জন্য, সত্য কথা বলার জন্য বঙ্গবন্ধুকে ৪৮৮২ দিন জেল খাটতে হয়েছিল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা পিতার অসমাপ্ত কাজ পূরণে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সুখী, সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নিরন্তর পরিশ্রম করে চলেছেন। প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, আজকের দিবসের ‘স্মার্ট লিগ্যাল এইড, স্মার্ট দেশ….বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ- যথার্থ প্রতিপাদ্য বলে মনে করছি।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি আরও বলেন, একজনের সাথে অন্যজনের সুসম্পর্ক বজায় রাখা, অন্যের মনে কষ্ট না দেওয়া, সৌহার্দ্র ও সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ থাকলে সমাজে কোনো ভুল হতে পারে না। মানুষকে আইনি জটিলতায় পড়তে হয় না। আমরা যদি নিজ নিজ ক্ষেত্র থেকে প্রত্যেকে প্রত্যেকের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারি, তবেই আমরা একটি বৈষম্যমুক্ত সুন্দর বাংলাদেশ পাবো। প্রতিমন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে কাজ করলে আমাদের ভুল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। মানুষ মানুষের জন্য, মানুষের কল্যাণে কাজ করলে সমাজে কোনো অশান্তি ও বৈষম্য থাকবে না। মানুষের কল্যাণে সঠিক বিচার যাতে সবাই পায়- এ মনোবৃত্তি আমাদের গড়ে তুলতে হবে। প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্র্যের বন্ধনে স্মার্ট মানুষ, স্মার্ট সমাজ ও স্মার্ট অর্থনীতি গড়ে তোলার জন্য সকলের সহযোগিতা চান।

খাগড়াছড়ি সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ এবং খাগড়াছড়ি লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল মামুন-এর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার পিপিএম(বার) মুক্তা ধর, খাগড়াছড়ি চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক, জেলা দায়রা জজ পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য নিলোৎপল খীসা উপস্থিত ছিলেন।

দিবসটি উপলক্ষ্যে আয়োজিত শোভাযাত্রায় পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি অংশ নেন। শোভাযাত্রাটি খাগড়াছড়ি জজ কোর্ট থেকে শুরু হয়ে ভাঙ্গা ব্রিজে গিয়ে শেষ হয়। বেলুন, পায়রা ও ফেস্টুন ওড়িয়ে শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি। জাতীয় আইন সহায়তা দিবস উপলক্ষ্যে খাগড়াছড়ি অফিসার্স ক্লাবে লিগ্যাল এইড খাগড়াছড়ি আয়োজিত মেলার আয়োজন করে। লিগ্যাল এইড আয়োজিত মেলায় ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেল, খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি, জাবরাং এনজিও, ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পেইন নামের ০৪টি স্টল অংশ নেয়। লিগ্যাল এইডের পক্ষে প্যানেলভিত্তিক শ্রেষ্ঠ আইনজীবী হিসেবে খাগড়াছড়ি বার এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বদরুল ইসলাম, মামলার সুফলভোগী আইনী সহায়তা প্রাপ্ত সাইদুল ইসলাম ও নারী আইনী সহায়তা প্রাপ্ত সুফলভোগী হিসেবে সাহেরা খাতুনকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। মেলায় নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে ২৪ ঘন্টা বিনামূল্যে ১০৯ নম্বরে ফোন বা এসএমএস করা এবং সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অবস্থিত ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) হতে সেবা গ্রহণের জন্য বিশেষ প্রচারণা চালানো হয়।

পরে লিগ্যাল এইডের সহযোগিতায় নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ বিষয়ক বিশেষ পাপেট শো নাটিকা প্রদর্শন করা হয়।

সারাদেশ-এর আরও খবর